হরতালে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি স্বাভাবিক, লেনদেন কম

1 month ago 31

হেফাজতে ইসলামের ডাকে রোববার (২৮ মার্চ) সকাল-সন্ধ্যা হরতালে স্বাভাবিক নিয়মেই শেয়ারবাজারে লেনদেন চলছে। লেনদেনের শুরুতেই ডিএসইর সদস্য ব্রোকারেজ হাউজগুলো সঠিক সময়ে ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মে যথাযথভাবে লগইন করায় নির্ধারিত সময়ে লেনদেন শুরু হয়।

এদিকে, রাজধানীতে বাসসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক থাকায় বিনিয়োগকারীদের ব্রোকারেজ হাউজের এসে লেনদেন করতে দেখা গেছে। তবে, অন্য দিনগুলোতে ব্রোকারেজ হাউজগুলোতে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি কিছুটা বেশি থাকে। এছাড়া সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রভাব বাড়ায় হাউজগুলোতে আগের চেয়ে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি কম রয়েছে।  হরতাল ও করোনার কারণে শেয়ারবাজারের লেনদেনে কিছুটা প্রভাব পড়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

অন্যান্য দিনের মতোই রোববার সকাল ১০টায় ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই-সিএসই) লেনদেন শুরু হয়। সকাল থেকেই সূচকের উঠা-নামায় লেনদের চলছে। তবে হরতালের কারণে মতিঝিল ও দিলকুশা এলাকায় অবস্থিত ব্রোকারেজ হাউজগুলোতে বিনিয়োগকারী উপস্থিত কম ছিল। অধিকাংশ বিনিয়োগকারীরা ব্রোকারেজ হাউজে টেলিফোন করেই লেনদেন সম্পন্ন করেছেন।  অনেকেই মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে লেনদেন করছেন।

এ বিষয়ে ডিএসইর সাবেক পরিচালক ও মডার্ন সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) খুজিস্তা নূর-ই-নাহরীন রাইজিংবিডিকে বলেন, হরতালের মধ্যেও ব্রোকারেজ হাউজে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি রয়েছে। তবে স্বাভাবিক দিনে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি এর চেয়ে বেশি থাকে। হরতালে শেয়ারবাজারে প্রভাব পড়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজ অন্যান্য দিনের চেয়ে লেনদেন অনেক কম হচ্ছে।

 আইসিবি সিকিউরিটিজ ট্রেডিং কোম্পানির বিনিয়োগকারী সমীর ক্রান্তি বারুরী বলেন, হরতালে শেয়ারবাজারে তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি। ব্রোকারেজ হাউজে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

প্রসঙ্গত, রোববার দুপুর ১টা ৪৫মিনিট পর্যন্ত ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইক্সে ৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫৩৩৫ পয়েন্টে। এ সময়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫৫ কোটি টাকা। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া মোট ৩৪৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে ১২৭টি, দাম কমেছে ৮৩টি ও অপরিবর্তীত রয়েছে ১৩৩টির।

Read Entire Article