সিলেটে হরতালে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আটক ৫

1 month ago 25

সিলেটে হরতাল সমর্থকদের সঙ্গে ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এ সময় কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। 

রোববার (২৮ মার্চ) দুপুরে সিলেট নগরের বন্দর বাজার সিটি পয়েন্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সেখান থেকে পাঁচ হরতাল সমর্থককে আটক করেছে পুলিশ। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের ডাকে রোববার (২৮ মার্চ) সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হচ্ছে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোর থেকে সিলেট নগরের সিটি পয়েন্টসহ বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নিয়ে যান চলাচলে বাধা দিচ্ছিল হরতাল সমর্থকরা। তাদের রাস্তা থেকে কয়েকবার সরিয়ে দেয় পুলিশ। দুপুর ১২টার দিকে ফের সেখানে পিকেটিংয়ের চেষ্টা করলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের ধাওয়া দেয়। পিকেটাররা কালীঘাটের দিকে সরে যায়। পিছু নেয় ছাত্রলীগের কর্মীরা। পরে পাল্টা ধাওয়া করে পিকেটাররা। তখন পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখান থেকে পাঁচজনকে আটক করা হয়। 

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ আটকের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। হরতালে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে নগরের প্রত্যেক মোড়ে মোড়ে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলেও জানান তিনি।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিস) বি এম আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের বলেন, হরতালের নামে যে কোনো ধরণের নাশকতা এড়াতে পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রিয় সম্পদ রক্ষায় পুলিশ সবসময় সতর্ক থাকবে। তিনি বলেন, পুলিশ ছাড়াও বিজিবি সদস্যরা নগরে টহল দিচ্ছে। এছাড়াও ছয়জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে রয়েছেন। 

সকাল থেকে হরতালের সমর্থনে নগর ছাড়াও জেলার বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নিয়ে পিকেটিং করছে হেফাজত নেতাকর্মীরা। তারা বিক্ষোভও করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কোথাও সংহিসংতার খবর পাওয়া যায়নি।

হরতালের কারণে সকালের দিকে নগরে যান চলাচল ছিল কম। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ছোট যান চলাচলের সংখ্যা। অবশ্য দূরপাল্লার কোনো যান সকাল থেকে টার্মিনাল ছাড়েনি। আর সকালে ট্রেন স্টেশন ছেড়ে গেছে।
 

Read Entire Article