শ্বশুরের কুনজরে শেষমেশ প্রাণটাই গেল পুত্রবধূর

1 month ago 28

দীর্ঘদিন ধরে কুয়েতে রয়েছেন ছেলে। এ সুযোগে ছেলের সুন্দরী বউয়ের প্রতি কুনজর পড়েছে শ্বশুর আব্দুল মান্নান ওরফে মনার। পুত্রবধূকে প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিতেন তিনি। তবে কোনোভাবেই সাড়া পেতেন না। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শেষমেশ ছেলের বউয়ের প্রাণটাই নিয়ে নিলেন।

রোববার সকালে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কেশারপাড় ইউনিয়নের ইটবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম ছায়েরা খাতুন ওরফে রেখা। তিনি

কুয়েত প্রবাসী বাবুলের স্ত্রী ও অজুনতলা ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রামের মো. হানিফের মেয়ে। রেখা তিন সন্তানের মা ছিলেন।

কেশারপাড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল হোসেন জানান, রেখা বেশ সুন্দরী ছিলেন। স্বামী কুয়েতে থাকায় পুত্রবধূকে প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিতেন শ্বশুর মনা। রোববার সকালে মনার স্ত্রী বাড়িতে ছিলেন না। এ সুযোগে তিনি আবারো পুত্রবধূকে কুপ্রস্তাব দেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে রেখাকে কুপিয়ে হত্যা করেন মনা।

সেনবাগ থানার ওসি আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, প্রায় ১৭ বছর আগে কুয়েত প্রবাসী বাবুলের সঙ্গে রেখার বিয়ে হয়। রোববার বেলা ১১টার দিকে ধারালো ছোরা দিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান শ্বশুর মনা। মরদেহ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Read Entire Article