‘শাল্লায় হিন্দুদের বাড়িতে হামলাকারীদের শাস্তি পেতে হবে’

2 weeks ago 10

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দুদের বাড়ি-ঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) নোয়াগাঁওয়ে হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি-ঘর পরিদর্শন শেষে এক অনুষ্ঠানে ভুক্তভোগী পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এ কথা জানান।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘১৭ মার্চ যে দুষ্কৃতকারীরা ফেসবুক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে ধর্মীয় উন্মাদনা তৈরি করে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি-ঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে, তারা দেশ ও মানবতার শত্রু। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ভোগ করতেই হবে।’

তিনি জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন, সুশীল সমাজ, ধর্মীয় নেতৃত্ববৃন্দ, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ, ছাত্র, যুবকসহ সমাজের সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে দুষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

ধর্মীয় আবেগ-অনুভূতি কাজে লাগিয়ে কোনো কুচক্রী মহল যাতে সুযোগ না নিতে পারে এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে না পারে, সে বিষয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বানও জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি, মুহিবুল হক মানিক এমপি, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মু. আব্দুল হামিদ জমাদ্দার, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি ও সাবেক সচিব অশোক মাধব রায়, ট্রাস্টি বীর মুক্তিযোদ্ধা রাজেন্দ্র দেব মন্টু, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব ড. দিলীপ কুমার ঘোষ, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাজ্ঞীর হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাহেব আলী পাঠান, সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমন, শাল্লা উপজেলার চেয়ারম্যান আল আমিন চৌধুরী। এ সময় বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ও ধমীয় নেতা, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যসহ বিপুল মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

View Source