মুন্সিগঞ্জে বিচার সালিশে সংঘর্ষে চিকিৎসাধীন আরো একজনের মৃত্যু

2 months ago 46

সালিশি বৈঠকে মুন্সিগঞ্জে শহরের উত্তর ইসলামপুর এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ জনে। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুন্সিগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর প্রার্থী আওলাদ হোসেন মিন্টু প্রধান মারা গেছেন।

অপর নিহতরা হচ্ছেন- ওই এলাকার কাশেম পাঠানের ছেলে মো. ইমন পাঠান ও বাচ্চু মিয়ার ছেলে মো. সাকিব হোসেন।

বুধবার রাতে এ সংঘর্ষ ঘটে। এ ঘটনায় রাতেই পুলিশ উত্তর ইসলামপুর এলাকা থেকে ৫ জনকে আটক করেছে।

ইভটিজিং নিয়ে রাতে উভয় পক্ষ আপোষ-মিমাংসায় বসে। মিন্টুর বাড়ির সামনে জামালের দোকান প্রাঙ্গণে সালিশ বৈঠকটি হয়। এই বৈঠকে মিমাংসাও হয়ে যাচ্ছিল, কিন্তু শেষ পর্যায়ে অভি গ্রুপের লোকজন আকস্মিক তিনজনকে ছুরিকাঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় তারা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে এবং বৈঠকে থাকা লোকজন হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ সময় সেখানকার চিকিৎসক ইমনকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহত মিন্টু ও সাকিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। রাত আড়াইটার দিকে ঢামেকের চিকিৎসক সাকিবকে মৃত ঘোষণা করেন। 

সদর থানার ওসি আবু বক্কর সিদ্দিক জানান,  ঘটনার পরপরই উত্তর ইসলামপুর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ওই এলাকা থেকে ৫ জনকে আটক করে পুলিশ। বর্তমানে সেখানকার পরিস্থিতি শান্ত। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করার প্রক্রিয়া চলছে।

Read Entire Article