মাদক মামলায় খালেদের বিরুদ্ধে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ৬ মে

3 weeks ago 14

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৬ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার অতিরিক্ত তৃতীয় মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত নতুন এ দিন ধার্য করেন। এ মামলায় মোট ১৫ জন সাক্ষীর মধ্যে তিনজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। 

এদিন আসামি খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে আদালতে হাজির করা হয়। তবে আদালতে সাক্ষী উপস্থিত না হওয়ায় আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৬ মে দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি আসামি খালেদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে অভিযোগ গঠন করেন। এর মধ্য দিয়ে এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু হয়।

অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর খালেদকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গুলশানে তার বাড়ি থেকে একটি শটগান, দুটি পিস্তল, শট-গানের ৫৭টি গুলি ও ৫৮৫টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরদিন দুপুরে তাকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়। একই দিন র‌্যাব-৩ এর ওয়ারেন্ট অফিসার গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে গুলশান থানায় অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। অন্যদিকে মতিঝিল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেন র‌্যাবের ওয়ারেন্ট অফিসার চাইলা প্রু মার্মা। 

এদিকে ঢাকার অতিরিক্ত তৃতীয় মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালতে আরেকটা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলার অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দিয়েছেন। তাছাড়া অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ক্যাসিনো খালেদ অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এছাড়া বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

গত বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর গুলশান থানায় খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনে সিআইডি মামলাটি করে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার গুলশানের বাসায় অভিযান চালায়। ওই বাসা থেকে ছয়টি দেশের মুদ্রা উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে সিঙ্গাপুরের ১০ হাজার ৫০ ডলার, থাইল্যান্ডের ১০ হাজার ৪৯০ বাথ, ভারতীয় সাড়ে তিন হাজার রুপি, সৌদি আরবের দুই হাজার ৩২১ রিয়াল, মালয়েশিয়ান ৬৫৬ রিঙ্গিত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৭৫ দিরহাম রয়েছে।

Read Entire Article