ভারতে করোনার ‘ডবল মিউটেন্ট ভ্যারিয়েন্ট’ শনাক্ত

2 months ago 46

ভারতে করোনার ‘ডবল মিউটেন্ট ভ্যারিয়েন্ট’ শনাক্ত হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বুধবার আল-জাজিরা অনলাইন এ তথ্য জানিয়েছে।

এমন সময় এই ‘ডবল মিউটেন্ট ভ্যারিয়েন্ট’ শনাক্তের খবর প্রকাশ হলো যখন ভারতে প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজার ২৬২ জন। চলতি বছর এক দিনে এটাই সর্বোচ্চ সংক্রমণ। একই দিন মারা গেছে ২৭৫ জন আক্রান্ত। গত ৮৩ দিনের মধ্যে এটাই সর্বোচ্চ মৃত্যু।

ভারতীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় জানিয়েছে,  করোনার ডবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে ১৮টি রাজ্যে। 

ইন্ডিয়ান সার্স-কভ-২ জিনোমিক্স কনসরটিয়াম (INSACOG) জানাচ্ছে, ১০ হাজার ৭৮৭ জন আক্রান্তের নমুনার জিনোম সিকুয়েন্স বা জিনের গঠন বিন্যাস বের করে ৭৭১ রকম ভ্যারিয়ান্ট পাওয়া গেছে। করোনার তিন বিদেশি প্রজাতি যথা ব্রিটেন স্ট্রেন (বি.১.১.৭), দক্ষিণ আফ্রিকার মিউটেন্ট স্ট্রেন (বি.১.৩৫১) ও ব্রাজিলীয় স্ট্রেনের (পি.১) মিউটেশনের ফলেই এই ডবল ভ্যারিয়ান্ট ছড়াচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

১০টি গবেষণাগারে আক্রান্তদের নমুনার জিনোম সিকুয়েন্স করা হচ্ছে। দুরকম মিউটেশন হতেও দেখা গেছে–E484Q এবং  L452R। মহারাষ্ট্রে মূলত করোনার এমন মিউটেশনের ফলে সংক্রামক স্ট্রেন ছড়িয়ে পড়েছে। কেরালায় N440K মিউটেশন বেশি দেখা গেছে। রাজ্যের অন্তত ১৪টি জেলায় এমন মিউটেন্ট স্ট্রেন ছড়িয়ে পড়েছে। 

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, মানুষের মেলামেশা, জনসমাগম যত বাড়ছে কোভিড স্ট্রেন তত দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। যত বেশি মানুষের শরীরে ঢুকছে স্ট্রেনের জেনেটিক মিউটেশন ততটাই বেশি হচ্ছে। তাই কোভিডের সুপার-স্প্রেডার জিন বাড়ছে।

Read Entire Article