বইমেলায় জবি শিক্ষার্থীর বই ‘গল্পের একটা বাড়ি’

1 month ago 21

অমর একুশে বইমেলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থী ফারহা ফাওজিয়া অতসীর একটি গল্পের বই প্রকাশিত হয়েছে। 

তরুণ এই লেখকের গল্পের বইয়ের নাম ‘গল্পের একটা বাড়ি’। বইটি প্রকাশ করেছে ‘অন্বয় প্রকাশ’।

জানা যায়, ‘গল্পের একটা বাড়ি’ বইটিতে পাঁচটি গল্প রয়েছে। গল্পগুলো ভিন্নরকম পটভূমি আর ভিন্ন স্বাদের। গল্পগুলো হলো- গল্পের একটা বাড়ি, মেঘবতীর কথা, স্বপ্নঘুড়ি নীল আকাশে ও প্রজাপতি এবং একটি ভয়ের রাত।

অতসী বলেন, ‘গল্পের একটা বাড়ি আমার লেখা সপ্তম বই। এবারের বইমেলায় এসেছে। পাঁচটি ভিন্ন স্বাদের গল্প নিয়ে গল্পের একটা বাড়ি। আশা করছি সবার ভালো লাগবে। বাবার অনুপ্রেরণায় লেখালেখি শুরু। সাহিত্যের প্রতি ভালোবাসা থেকে লেখালেখি। নিরলসভাবে সাহিত্য চর্চা করতে চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘গল্পগুলো তাকে নতুন করে পাঠকদের কাছে চিনিয়ে দেবে। আগের গ্রন্থগুলো থেকে এই বইয়ের গল্পগুলো অনেকটাই নতুনত্ব ও পরিণত বলা যায়। গল্পের একটা বাড়ি শিশু- কিশোর পাঠকদের ভালো লাগবে। ভালো লাগবে বড়দেরও।’

বইটির একজন পাঠক ঝিলিক। তিনি বলেন, ‘বইটা আমি পড়েছি, অভিজ্ঞ হাত। খুবই সাবলীল সব শব্দ, গল্পগুলোও বেশ গোছানো। শিশু-কিশোরদের বেশ ভালো লাগবে এটা আমি বলতে পারি। যাদের বাড়িতে ক্ষুদে পাঠক রয়েছে, তারা বইটি সংগ্রহ করতে পারেন। তাছাড়া বড়রাও পড়ে দেখতে পারেন, আশা করি আপনাদের সবারই ভালো লাগবে। ডুবে যাবেন গল্পের একটা বাড়ির প্রতিটি গল্পে।’ 

ফারহা ফাওজিয়া অতসীর আগের বইগুলোর মতো এই বইটিও পাঠককে অন্যরকম এক ভালো লাগায় আচ্ছন্ন করবে বলে মন্তব্য করছেন পাঠকরা।

বইটির লেখক ফারহা ফাওজিয়া অতসী ছবি আঁকেন, আবৃত্তি করেন, গল্পও লেখেন। এগুলো করে অনেক পুরস্কারও পেয়েছেন। যখন অতসী দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে, তখন তার প্রথম গল্প দৈনিক যুগান্তরের আলোর নাচন বিভাগে ছাপা হয়। তার প্রথম বই ‘কুটম ও ডাইনীবুড়ি’ পেয়েছে শিশুমেলা সাহিত্য পুরস্কার। ছবি আঁকার জন্য মেরিডিয়ান-আনন্দ আলো চিলড্রেন পেইন্টিংস অ্যাওয়ার্ড, ঢাকা বিভাগে প্রথম। ইউনিসেফ প্রদত্ত মিনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০১৫ সালে প্রথম এবং ২০১৬ সালে দ্বিতীয় হয়েছেন। ইতোমধ্যে অতসীর ৬টি বই প্রকাশিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, অতসীর ‘গল্পের একটা বাড়ি’ বইটি বইমেলায় অন্বয় প্রকাশের ৩৫৫ নং স্টলে পাওয়া যাবে। এছাড়াও রকমারি ডটকম ও কানামাছি ডটকমে অর্ডার করে দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে বইটি সংগ্রহ করা যাবে।

Read Entire Article