'পায়েল, শ্রাবন্তী ও তনুশ্রীদের ছোট্ট ভুল হয়েছে', ক্ষমা চাইলেন বরানগরের BJP প্রার্থী Parno

1 month ago 28

 রবিবার গঙ্গাবক্ষে দোল উৎসব উদযাপনে তৃণমূল নেতা মদন মিত্রের সঙ্গে দেখা যায় বিজেপির ৩ তারকাপ্রার্থীকে। ছিলেন পায়েল সরকার, তনুশ্রী চক্রবর্তী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। মদন মিত্রের সঙ্গে সেলফি তুলতেও দেখা যায় পায়েল, তনুশ্রী, শ্রাবন্তীদের। যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়। এনিয়ে ফেসবুকে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি নেত্রী, অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র। মদন মিত্রের সঙ্গে পায়েল, তনুশ্রী, শ্রাবন্তীদের দোল উৎসবে যোগ দেওয়ার ঘটনায় তাঁদের হয়ে ক্ষমা চাইলেন বিজেপির আরও এক তারকা প্রার্থী পার্নো মিত্র। 

নিজস্ব প্রতিবেদন : রবিবার গঙ্গাবক্ষে দোল উৎসব উদযাপনে তৃণমূল নেতা মদন মিত্রের সঙ্গে দেখা যায় বিজেপির ৩ তারকাপ্রার্থীকে। ছিলেন পায়েল সরকার, তনুশ্রী চক্রবর্তী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। মদন মিত্রের সঙ্গে সেলফি তুলতেও দেখা যায় পায়েল, তনুশ্রী, শ্রাবন্তীদের। যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়। এনিয়ে ফেসবুকে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি নেত্রী, অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র। মদন মিত্রের সঙ্গে পায়েল, তনুশ্রী, শ্রাবন্তীদের দোল উৎসবে যোগ দেওয়ার ঘটনায় তাঁদের হয়ে ক্ষমা চাইলেন বিজেপির আরও এক তারকা প্রার্থী পার্নো মিত্র। 

বরানগরের বিজেপি প্রার্থী পার্নো মিত্র সোমবার বলেন, ''পায়েল, শ্রাবন্তী ও তনুশ্রী গতকাল মদন মিত্রের সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে ছিলেন, সেটা তাঁদের ছোট্ট ভুল হয়েছে। তাঁদের হয়ে আমি হাতজোড় করে ক্ষমা চাইছি। তিনি আরো বলেন, এজন্য হয়তো কর্মীদের মনোবল ভেঙেছে কিন্তু এটা সাময়িক ভুল।'' এদিন বারাকপুরের প্রশাসনিক ভবনে মনোনয়নপত্র জমা দেন পার্নো মিত্র।

এদিকে রবিবার গঙ্গাপক্ষে মদন মিত্রের সঙ্গে দোল উদযাপনের ঘটনায় সোমবার ফেসবুক পোস্টে সাফাই দিয়েছেন, বেহালা পূ্র্বের বিজেপি প্রার্থী পায়েল সরকার নিজেও। প্রসঙ্গত, ওই দোলের অনুষ্ঠানটি একটি সংবাদ চ্যানেলের তরফে আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই হাজির হয়েছিলেন শ্রাবন্তী, পায়েল, তনুশ্রী, শ্রীতমা, দেবাংশু ভট্টাচার্য এবং মদন মিত্র। অনুষ্ঠানে মদন মিত্রদের জন্য 'খেলা হবে' গানটি যেমন বেজেছে, তেমনই শ্রাবন্তীদের জন্য বেজেছে 'রং দে তু মোহে গেরুয়া'। সঙ্গে বেজেছে মদন মিত্রের নিজের লেখা 'মোদী-শাহ কুমড়োর ঘ্যাঁট খা'। তবে এই দোল উৎসবের ছবি, মদন মিত্রের সঙ্গে শ্রাবন্তী, পায়েল, তনুশ্রীর সেলফি নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বিতর্ক তৈরি হয়। ফেসবুকে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি নেত্রী, অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র। 

Read Entire Article