পদ্মার চরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবককে গুলি করে হত্যা

2 months ago 42

রাজশাহী বাঘার পদ্মার চরাঞ্চলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র এক যুবককে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় একজনকে অপহরণ করে নিয়ে যায় তারা। বুধবার রাতে উপজেলার পদ্মার চরাঞ্চলের চৌমাদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবক ইব্রাহীম দেওয়ান বাঘা উপজেলার চরাঞ্চল চৌমাদিয়া গ্রামের হাবু দেওয়ানের ছেলে। অপহৃত ব্যক্তির নাম মোশাররফ হোসেন। চরাঞ্চলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কথিত ‘রশিদ বাহিনী’র লোকজন এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে পুলিশ ও নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে দিদার ব্যাপারির গম ক্ষেতে আগাছা পরিস্কারের জন্য আগুন দেয়। সেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে মজনু দর্জির কলা বাগানে ধরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। স্থানীয়ভাবে বিষয়টি নিস্পত্তি করা হলে দিদার ব্যাপারির আত্মীয় বিজিবির সোর্স পরিচয়দানকারি আব্দুর রশিদ প্রভাব বিস্তার করে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থেকে সন্ত্রাসী লোকজন নিয়ে মজনু দর্জি ও তার লোকজনের  উপর হামলা করে। এতে চারজন গুলিবিব্ধসহ অন্তত ৮ জন আহত হন। 

এ নিয়ে বাঘা ও দৌলতপুর থানা এলাকার ২৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৫/৭ জনের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়।

বাঘা থানার ইনস্পেক্টর (তদন্ত) আবদুল বারী জানান,  চৌমাদিয়া চরাঞ্চলে আধিপত্য বিস্তার করে আবারো হামলা চালিয়ে ইব্রাহীম দেওয়ানকে গুলি করে হত্যা করেন একই গ্রামের আইনাল ব্যাপারির ছেলে আব্দুর রশিদ। বুধবার রাতে চৌমাদিয়া গ্রামের রেজ্জাকের বাড়ির পাশে বসে ছিল মজনু দর্জির সমর্থিত  ইব্রাহীম ও মোশারফ। সেখানে  আব্দুর রশিদ তার বাহিনীর লোকজন তাদের উপর হামলা চালিয়ে গুলি ছুঁড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ইব্রাহীম গুরুতর আহত হন। 

তিনি আরো জানান, রাত সোয়া ১১টার দিকে স্থানীয়রা ইব্রাহীমকে উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সোলাইমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মামলার তদন্তকারি অফিসার এসআই মোকারম হোসেন জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ বৃহস্পতিবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Read Entire Article