চাল তেল মুরগি মাংস সবজি- সবকিছুর দামই চড়া

1 month ago 14

সামনে রমজান মাস। বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি চাকরিজীবী এবং নিম্ন আয়ের মানুষের জীবনকে এখনি দুর্বিষহ করে তুলেছে।  

এ চিত্র এখন প্রতিদিনের। বিশেষ করে চাল, তেল, মুরগি, গরুর মাংস আর সবজিসহ অনেক পণ্যের দামেই নাভিশ্বাস উঠেছে জনজীবনে।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) কারওয়ান বাজারের পাইকারি চালের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সব ধরনের চালের দাম কেজি প্রতি ২ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে। বর্তমানে নাজিরশাইল বিক্রি হচ্ছে ৬৮-৭০ টাকায়। অথচ গত সপ্তাহে ছিল ৬৬-৬৭ টাকা কেজি। মিনিকেট ৬০-৬২ থেকে বেড়ে আজ বিক্রি হচ্ছে ৬৪-৬৫ টাকায়, আটাশ চাল গত সপ্তাহে ছিল ৪৮-৫০ টাকা, আজকের দাম ৫২-৫৩ টাকা। মোটা চালও কেজিতে ২ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৮ টাকায়। 

‘নোয়াখালি রাইছ’ এর মালিক পাইকারি চাল ব্যবসায়ী আব্দুল মতিন পাটওয়ারী জানান, ভারতীয় চালের আমদানি কম, অন্যদিকে মিল মালিকদের অতিরিক্ত মুনাফার কারসাজি ও পরিবহন খরচ বেড়ে যাওয়ায় চালের দাম বেড়েছে।

এদিকে গত সপ্তাহের চেয়ে আজকে সব মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ থেকে ৫০ টাকা। নিউমার্কেটে ব্রয়লার মুরগি ১৬০ থেকে বেড়ে ১৭০ টাকা, সোনালী জাতের মুরগি ২০ টাকা বেড়ে ৩৭০ টাকা, দেশি জাতের মুরগির কেজি ৫০ টাকা বেড়ে আজ বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা করে। বর্তমানে সব ধরনের মুরগির সাপ্লাই চাহিদার তুলনায় কম। এ কারণেই মুরগির দাম বেড়েছে বলে জানান, জনপ্রিয় চিকেন ব্রয়লার হাউজের মালিক মো.শাহজাহান মিয়া।

মাছের বাজার অনেকটা স্থিতিশীল আছে।  নিউমার্কেটে গিয়ে দেখা যায়, বড় রুই বিক্রি হচ্ছে কেজি ৩৫০ টাকা, বড় কাতল ৪০০ টাকা, চিংড়ি বড় ১১০০ টাকা, মাঝারি ৬০০ টাকা। বাতাসি মাছ প্রতিকেজি ৩০০ টাকা, বাইম মাছ ৫০০-৬০০ টাকা, টেংরা ৪০০-৪৫০ টাকা এবং শোল মাছ ৫০০ টাকা করে দাম হাঁকাচ্ছেন বিক্রেতারা।

এছাড়া মাঝারি আকারের রূপচাঁদা মাছ বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকায়।

ভোজ্য তেলের দাম গত সপ্তাহের চেয়ে আবারও বেড়েছে। সরকারিভাবে ভোজ্য তেলের দাম নির্ধারণ করে দেওয়া আছে। কিন্তু কোম্পানিরা বেশি দামে সরবরাহ করছে বলে দোকানীরা নির্ধারিত দামে বেচতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন নিউমার্কেটের মুদি দোকানী মোহসিন মিয়া। তার দোকানে আজ কোম্পানি ভেদে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৫ টাকা বেড়ে ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকায়।  ২ লিটার ২৫৫ থেকে ২৬০ টাকা।  ৫ লিটার ৬২৫ থেকে ৬৬০ টাকা। অথচ এক সপ্তাহ আগে এই তেলের দাম ছিল ১ লিটার ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা, ২ লিটার ২৪৫ থেকে ২৫০ টাকা এবং ৫ লিটার ৬০০ থেকে ৬২০ টাকা।

রাজধানীর হাতিরপুল, নিউমার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, ফুলকপি ও বাঁধাকপি গত সপ্তাহের তুলনায় ১০ টাকা বেড়ে ৩৫-৪০ টাকা, বেগুন (গোল) ৮০ টাকা, বেগুন (লম্বা) ৬০ টাকা, কাঁচা মরিচ প্রতি কেজি ৫০-৬০ টাকা, লাউ ৫০-৬০ টাকা, টমেটো ৫ টাকা বেড়ে ৩০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৩ টাাঁ কমে বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকা, আলু আগের মতই ১৮ টাকা, রসুন (বড়) ১২০ টাকা, মশুরি ডাল দেশিটা বিক্রি হচ্ছে কেজি ১০০-১০৫ টাকা দামে।

লেবুর দাম প্রতিদিনই অবিশ্বাস্যভাবে বাড়ছে।  গরমে সবসময় লেবুর চাহিদা বেশি থাকে।  এসময় খাবারে সঙ্গে লেবু খাওয়াসহ সবাই লেবুর শরবত খেতে পছন্দ করেন।  চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম বলে লেবুর দামের উর্ধ্বগতি বলে জানালেন নিউমার্কেট বনলতা বাজারের মোস্তফা স্টোরের সবজি বিক্রেতা মোস্তফা।  বর্তমানে মাঝারি আকারের এক হালি লেবু বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা।  আর বড় লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ৮০-১০০ টাকা।

সব ধরনের মাংসের দাম বেড়েছে গত সপ্তাহের তুলনায়।  গরুর মাংসের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা বেড়ে ৬০০ টাকায়।  খাশির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৮৮০-৯০০ টাকায়।

Read Entire Article