‘গণহত্যা দিবস’ তাই জন্মদিন পালন করেন না আসিফ

2 months ago 46

বাংলা গানের ‘যুবরাজ’খ্যাত সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর। ২৫ মার্চ নন্দিত এই শিল্পীর জন্মদিন। আজ দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে গণহত্যা দিবস। বেদনাবিধুর দিনটিকে যথাযোগ্য সম্মান জানাতে তিনি জন্মদিন উদযাপন করেন না। ভক্তদেরও দিনটি পালন না-করার অনুরোধ করেন এই শিল্পী।

আসিফ আকবরের দেশাত্মবোধক গান রয়েছে প্রায় ৭০টি। দেশের সংগীতাঙ্গন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। গানের রয়্যালটি নিয়ে তিনি সব সময়ই সরব। এ প্রসঙ্গে আসিফ বলেন, ‘আমাদের দেশে সবচেয়ে বাজে সিস্টেম হচ্ছে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে। ৭২ সালে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে রয়্যালটি রেভিনিউ বন্ধ হয়েছিল; সেটা ছিল আমাদের জন্য একটা দুঃখজনক বিষয়। তখনকার জন্য সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। কিন্তু এখন ৫০ বছর পর এসেও আমরা রয়্যালটি পাচ্ছি না। ফিল্মের গান থেকে মোটা অঙ্কের রেভিনিউ আসে। দু’একটা কোম্পানির কাছে আমাদের সিনেমার গান জিম্মি হয়ে আছে। প্রডিউসাররা নামমাত্র মূল্যে গানগুলো বিক্রি করে দেন। শুধু তাই নয়, আমাদের সমস্ত সুরকার, গীতিকার, শিল্পীদের তারা বিক্রি করে দিয়েছেন তাদের কাছে। এভাবে আমাদের হাজার কোটি টাকা বেহাত হয়ে যাচ্ছে।’

সংগীতের মেধাস্বত্ব আইন সংশোধন প্রয়োজন বলে মনে করেন বাংলা গানের যুবরাজ। এ জন্য কথা বলে অনেকবার আইনগত ঝামেলায় পড়েছেন। তিনি বলেন, ‘তিনজন মামলা করেছেন। আরেকজন জিডি। তাদের চারজনের বক্তব্যই এক! শুধু নাম পরিবর্তন করেছে।’ তবে এসব নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন জানিয়ে আসিফ বলেন, ‘প্রতি মাসে চার-পাঁচবার কোর্টে যেতে হয়। ফলে মনোসংযোগে ব্যাঘাত ঘটে। তবে আমি ভেঙে পড়ার লোক না। যেখান থেকে ভাঙা শুরু হয়, সেখান থেকেই আমি শুরু করি।’

জনপ্রিয় এই শিল্পীর হাতে রয়েছে বেশ কিছু গান। এর মধ্যে নাজির মাহমুদের সুরে তিনটি, কবির সুমনের কথা-সুরে আরও তিনটি এবং নকিব খানের সুরে আসিফের গানের কাজ চলছে।  
 

Read Entire Article