অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেল চবিতে ভর্তির আবেদন

1 week ago 9

(ফাইল ছবি)

‘স্বাধীনতা স্মারক ভাস্কর্য’ ছবি:(ফাইল ছবি)

উচ্চ শিক্ষায় ভর্তিচ্ছুদের পছন্দের শীর্ষে থাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। আয়তনে দেশের সর্ববৃহৎ এ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতি বছর ভর্তির সুযোগ পান ৪ হাজার ৯২৬ জন। ১২ এপ্রিল থেকে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির অনলাইন আবেদন চলছে। 

এবার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবেদনের সংখ্যা অতীতের সব রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে। চলতি মাসের ৭ মে ভর্তির অনলাইন আবেদন শেষ হওয়ার আগেই আবেদন করেছেন ১ লাখ ৮৮ হাজার ৭০ শিক্ষার্থী। যেখানে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে আবেদনের সংখ্যা ছিলো ১ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭০ জন। এবং ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে এ সংখ্যা ছিলো ১ লাখ ৩৬ হাজার ২৪৭ জন। 

মঙ্গলবার (৪ মে) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আইসিটি সেলের পরিচালক ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম। 

তিনি বলেন, সার্ভার জনিত ত্রুটির কারণে প্রথম দিকে কিছু অসুবিধা হলেও এখন সব ঠিক আছে। আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৮৮ হাজার ৭০ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। 

এর আগে গত ১২ এপ্রিল বেলা ১১টা থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন কার্যক্রম শুরু হয় যা শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩০ এপ্রিল। তবে করোনার কারণে পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্ভারজনিত ত্রুটির জন্য এ সময়সীমা আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। সে অনুযায়ী আবেদনের সময় শেষ হচ্ছে ৭ মে রাত ১২ টায়। তবে ভর্তি পরীক্ষার ফি জমা দেয়া যাবে ১১ মে রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

পরীক্ষা যখন: এবারের ভর্তি পরীক্ষা স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বশরীরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। ক্যাম্পাসে ২২ হাজার শিক্ষার্থী বসার মতো আসন রয়েছে। এক্ষেত্রে আবেদনকারীর সংখ্যা বিবেচনায় ১৫ হাজার করে পরীক্ষা কয়েক শিফটে নেয়া হবে। ২২ ও ২৩ জুন ‘বি’ ইউনিট, ২৪ ও ২৫ জুন ‘ডি’ ইউনিট, ২৮ ও ২৯ জুন ‘এ’ ইউনিট ও ৩০ জুন ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ১ জুলাই উপ-ইউনিট ‘বি-১’ ও  ‘ডি-১’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

প্রবেশপত্র ডাউনলোড যখন: ‘বি’ ইউনিট ৭ জুন, ‘ডি’ ইউনিট ৯ জুন, ‘এ’ ইউনিট ১৩ জুন, ‘সি’ ইউনিট ১৫ জুন, ‘বি-১’ ও ‘ডি-১’ উপইউনিট ১৬ জুন থেকে উন্মুক্ত হবে প্রবেশপত্র ডাউলোডের জন্য। প্রতিটি ইউনিটের প্রবেশপত্র ভর্তি পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগ পর্যন্ত ডাউনলোড করা যাবে।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউটের বিপরীতে ৪ হাজার ৯২৬টি আসন রয়েছে। সে হিসেবে ‘এ’ ইউনিটে আসন আছে ১ হাজার ২১৪ট, ‘বি’ ইউনিটে ১ হাজার ২২১টি, ‘সি’ ইউনিটে ৪৪২টি ও ‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৫৭টি। এছাড়া দুইটি উপ ইউনিটের মধ্যে ‘বি১’ ইউনিটে আসন রয়েছে ১২৫টি ও ‘ডি১’ ইউনিটে ৩০টি আসন রয়েছে।

এছাড়া ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (https://admission.cu.ac.bd) পাওয়া যাবে।

Read Entire Article